লংকাবাংলা কুড়িগ্রামে বন্যাদুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছে

seminar

গত ২৮শে জুলাই, ২০১৭ তে লংকাবাংলা কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার কিছু প্রত্যন্ত গ্রামে একটি ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করে। বন্যাদুর্গত ২০০০ পরিবারের ২৫ মেট্রিক টনের বেশি ত্রানসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, চিড়া, গুড়, ওরস্যালাইন, ভোজ্য তেল, ওষুধ, বিস্কিট, এবনফ অন্যান্য শুকনো খাবার।

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের পক্ষ থেকে বিতরণ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান মাহবুবুর রহমান,; দায় ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান এস, এম, আবু ওয়াসিব; উলিপুর পৌরসভার মেয়র তারিক আবুল আলা এবং উলিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হায়দার আলি এলাকার বিভিন্ন বন্যাদুর্গত পরিবারের কাছে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন।

লংকাবাংলা ফাউন্ডেশন সিএসআর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে প্রতি বছরই শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পরিবেশ খাতে এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়। এছাড়াও, ইহা সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প ও অনুষ্ঠান আয়োজন করে থাকে। এই বছরের মে মাসে লংকাবাংলা দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ____ইউনিয়নের ______ গ্রামের ৭৫০টি পরিবারের কাছে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করে ও ১০০০ এরও বেশি মানুষের কাছে চিকিৎসাসেবা পৌঁছে দেয়।

বন্যাদুর্গত মানুষের বর্তমান দুর্দশার কথা চিন্তা করে লংকাবাংলার ব্যবস্থাপনা সিএসআর কার্যক্রমের আওতায় কুড়িগ্রামের বন্যাআক্রান্তদের কাছে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে।

লংকাবাংলা বগুড়া ও দিনাজপুর হেড অফিস থেকে আরো কর্মকর্তাগণ এবং এলাকার নেতৃবৃন্দ এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।