লংকাবাংলা ফাইন্যান্স ডিপিএস -এর  গ্রাহকের পরিবারকে বীমা সুবিধার আওয়তায় মরণোত্তর ম্যাচিউরড পরিমাণ অর্থ প্রদানে প্রতিশ্রুতি পূরণ

img

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স পিএলসি-এর যশোর শাখা কর্তৃক গত ১১ জুন, ২০২৪ইং তারিখে একটি চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য ছিলো, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের স্বস্তি ডিপোজিট স্কিমের আওতায় ডিপিএস-এর ম্যাচিউরড পরিমাণ অর্থ প্রদাণের প্রতিশ্রুতি পূরণ করা।

সম্প্রতি, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের গ্রাহক, মরহুম এস. এম. নিয়ামত আলী, স্বস্তি ডিপোজিট স্কিমের আওতায় একটি অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন, যেখানে স্কিমটি ম্যাচিউরিটির জন্য ডিপিএস-এর মোট ৬০ টি মাসিক কিস্তির মধ্যে ২৭টি কিস্তি তিনি সম্পন্ন করেন। অতঃপর দুর্ভাগ্যবশত, তিনি ব্রেইন স্ট্রোকে মৃত্যুবরণ করেন। ডিপিএস কভারেজের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স তার স্ত্রী ও নমিনি সেলিনা পারভিনের কাছে সম্পূর্ণ ম্যাচিউরড পরিমাণ অর্থের চেক হস্তান্তর করে।

চেকটি আনুষ্ঠানিকভাবে সেলিনা পারভিনের হাতে তুলে দেন লংকাবাংলা ফাইন্যান্স পিএলসি-এর এসইভিপি ও রিটেইল বিজনেস প্রধান খুরশেদ আলম। সেই সময় উক্ত আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন এম. ইউ. সি. ফুড লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শ্যামল দাস (সিআইপি) এবং যশোর প্রেস ক্লাবের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন।

উল্লেখ্য অনুষ্ঠানে অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি আরও উপস্থিত ছিলেন, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স পিএলসি-এর এসএভিপি ও রিটেইল লায়াবিলিটি প্রধান খন্দকার জাকারিয়া; যশোর শাখা প্রধান ও সিনিয়র ম্যানেজার মোঃ আল আমিন; যশোর মহিলা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি তনুজা রহমান মায়া এবং যশোর মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সায়েদা বানু শিল্পী।

এই চেক প্রদান অনুষ্ঠানটি লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের গ্রাহকদের প্রতি সহযোগিতার ও প্রতিশ্রুতি পূরণের এক অনন্য উদাহরণ, যার মাধ্যমে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স-এর আর্থিক পরিষেবাগুলোর প্রতি আস্থা ও নির্ভরতা আরও সুদৃঢ় করতে সাহায্য করবে।