(সিএমএসএমই) অর্থায়নে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্যে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডকে সম্মাননা প্রদান

seminar

বাংলাদেশ ব্যাংকের আয়োজনে “ব্যাংকার ও এসএমই নারী উদ্যোক্তা সমাবেশ ও পণ্য প্রদর্শনী মেলা ২০২০” এর সমাপনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর জনাব ফজলে কবির আর্থিক অন্তর্ভুক্তি কার্যক্রমের আওতায় কটেজ, মাইক্রো, স্মল ও মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজ (সিএমএসএমই) অর্থায়নে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্যে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডকে সম্মাননা প্রদান করেন।

এই অর্জন উদযাপনে লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব খাজা শাহরিয়ার এসএমই বিভাগসহ প্রতিষ্ঠানের সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। জনাব খাজা শাহরিয়ার বলেন, “দেশের অর্থনৈতিক অবকাঠামের টেকসই উন্নয়নের জন্য স্বল্প ও মাঝারি শিল্পের উন্নয়ন বিশেষভাবে প্রয়োজন। এই ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের বিকাশে বিভিন্ন পদক্ষেপগুলোকে সফল করার জন্য লংকাবাংলাও কাজ করে যাচ্ছে একযোগ। এই অর্জন শুধুমাত্র প্রতিষ্ঠানটির এসএমই বিভাগের নয়, এটি সমগ্র লংকাবাংলা পরিবারের।“ তিনি আরো বলেন, “বাংলাদেশ ব্যাংকের এই বিশেষ স্বীকৃতি প্রতিষ্ঠানকে এসএমই সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আরো সাফল্য ও লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অনুপ্রেরণা প্রদান করবে এবং সামনের দিনগুলোতে কর্মক্ষেত্রে অবদান রাখতে সবাইকে প্রেরণা যোগাবে।“
ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে জনাব মোঃ কামরুজ্জামান খান বলেন, “এই অর্জন লংকাবাংলার জন্যে এক বিশাল সাফল্য। এই অর্জনে থেমে না থেকে আমাদেরকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। এই জন্য সকলের সহযোগিতা কাম্য“ এই সাফল্য অর্জনে অবদানের জন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন লংকাবাংলা ফাইন্যান্স এর অপারেশনস বিভাগের প্রধান এ. কে. এম. কামরুজ্জামান, এফসিএমএ, রিটেইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস এর প্রধান খুরশেদ আলম, ট্রেজারী এবং এফআই বিভাগ প্রধান কামরুল ইসলাম, চিফ রিস্ক অফিসার মোহাম্মদ কামরুল হাসান, এফসিএ, গ্রূপ কোম্পানি সেক্রেটারি মোস্তফা কামাল, এফসিএ, কর্পোরেট ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস এর প্রধান মোহাম্মদ শোয়েব, চীফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার, শামীম আল মামুন, এফসিএ, ক্রেডিট রিস্ক ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ নাজমুল হাসান টিপু, সিএফএ, মানব সম্পদ বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ হাফিজ আল আহাদ, আইন বিভাগের প্রধান উম্মে হাবিবা শারমীন, জেনারেল এন্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার সার্ভিসেস বিভাগের প্রধান মুহাম্মদ হাবিব হায়দার, ব্র্যান্ড মার্কেটিং ও কমিউনেশনেশন্স বিভাগের প্রধান মোঃ রাজিউদ্দিন এবং উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দসহ আরো অনেকে।
দেশ ও সমাজের উন্নয়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের এই স্বীকৃতি অর্জনে গর্বিত লংকাবাংলা পরিবার।